সিলেট ১২:০০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রাথমিকের ছুটি বাড়ল ১৬ দিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২০২৪

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২০২৪ সালের ছুটির তালিকা সংশোধন করে ১৬ দিন ছুটি বাড়িয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। এতে মাধ্যমিক স্তরের মতোই প্রাথমিকের বাৎসরিক ছুটি (শুক্র ও শনিবার ছাড়া) ৭৬ দিন হয়েছে। এর আগে ৬০ দিনের ছুটির তালিকা প্রকাশ করেছিল প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। শিক্ষক অসন্তোষের মুখে ছুটির তালিকায় এই সংশোধন আনা হয়েছে।

আজ রবিবার প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ তথ্য কর্মকর্তা মাহবুবর রহমান ছুটি বাড়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। গত ২৮ ডিসেম্বর ছুটির সংশোধিত তালিকায় স্বাক্ষর করেন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

সংশোধিত ছুটির তালিকায় দেখা যায়, পবিত্র রমজান, বঙ্গবন্ধুর জন্ম দিবস, জাতীয় শিশু দিবস, দোলযাত্রা, স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস, ইস্টার সানডে, জুমাতুল বিদাসহ বিভিন্ন ধর্মীয় ও জাতীয় দিবসগুলোর ছুটি আট দিন বাড়ানো হয়েছে। ঈদুল আজহা ও গ্রীষ্মকালীন অবকাশ ছুটি বেড়েছে সাত দিন।

দুর্গাপূজা, লক্ষ্মীপূজা ও ফাতেহা-ই-ইয়াজদাহমের ছুটি বেড়েছে দুই দিন। শীতকালীন অবকাশ ও বিজয় দিবসে ছুটি বেড়েছে এক দিন। এসব খাতে ছুটি বেড়েছে ১৮ দিন। অন্যদিকে আষাঢ়ী পূর্ণিমা ও শুভ মহালয়া―এ দুই দিনের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।

এর আগে মাধ্যমিকের মতোই ৭৬ দিনের ছুটি পাওয়ার দাবি জানিয়েছিলেন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকদের দশম গ্রেড বাস্তবায়ন সমন্বয় পরিষদের সমন্বয়ক মু. মাহবুবর রহমান। একই দাবিতে দেশের বিভিন্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা অসন্তোষ প্রকাশ করেন।

বিষয়ঃ
জনপ্রিয় সংবাদ

প্রাথমিকের ছুটি বাড়ল ১৬ দিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২০২৪

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০১:১৪:৪৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১ জানুয়ারী ২০২৪

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২০২৪ সালের ছুটির তালিকা সংশোধন করে ১৬ দিন ছুটি বাড়িয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। এতে মাধ্যমিক স্তরের মতোই প্রাথমিকের বাৎসরিক ছুটি (শুক্র ও শনিবার ছাড়া) ৭৬ দিন হয়েছে। এর আগে ৬০ দিনের ছুটির তালিকা প্রকাশ করেছিল প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। শিক্ষক অসন্তোষের মুখে ছুটির তালিকায় এই সংশোধন আনা হয়েছে।

আজ রবিবার প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ তথ্য কর্মকর্তা মাহবুবর রহমান ছুটি বাড়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। গত ২৮ ডিসেম্বর ছুটির সংশোধিত তালিকায় স্বাক্ষর করেন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

সংশোধিত ছুটির তালিকায় দেখা যায়, পবিত্র রমজান, বঙ্গবন্ধুর জন্ম দিবস, জাতীয় শিশু দিবস, দোলযাত্রা, স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস, ইস্টার সানডে, জুমাতুল বিদাসহ বিভিন্ন ধর্মীয় ও জাতীয় দিবসগুলোর ছুটি আট দিন বাড়ানো হয়েছে। ঈদুল আজহা ও গ্রীষ্মকালীন অবকাশ ছুটি বেড়েছে সাত দিন।

দুর্গাপূজা, লক্ষ্মীপূজা ও ফাতেহা-ই-ইয়াজদাহমের ছুটি বেড়েছে দুই দিন। শীতকালীন অবকাশ ও বিজয় দিবসে ছুটি বেড়েছে এক দিন। এসব খাতে ছুটি বেড়েছে ১৮ দিন। অন্যদিকে আষাঢ়ী পূর্ণিমা ও শুভ মহালয়া―এ দুই দিনের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।

এর আগে মাধ্যমিকের মতোই ৭৬ দিনের ছুটি পাওয়ার দাবি জানিয়েছিলেন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকদের দশম গ্রেড বাস্তবায়ন সমন্বয় পরিষদের সমন্বয়ক মু. মাহবুবর রহমান। একই দাবিতে দেশের বিভিন্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা অসন্তোষ প্রকাশ করেন।