সিলেট ০২:০৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভেজা চোখে কেবিসির মঞ্চকে বিদায় জানালেন বলিউড শাহেনশা অমিতাভ

বছরের শেষলগ্নে এসে শেষ হল কৌন বনেগা ক্রোড়পতির ১৫ নম্বর সিজন। দীর্ঘ সফরে এই শো-এর সঙ্গে একাত্ম হয়ে গিয়েছেন সঞ্চালক বলিউড শাহেনশা অমিতাভ বচ্চন। আর তাই তো গত ২৯শে ডিসেম্বর শেষবারের মতো টিভির পর্দায় সম্প্রচারিত হওয়া কেবিসির মঞ্চকে ভেজা চোখ ও কাঁপা ঠোঁটে শেষবিদায় জানালেন বিগ বি।

হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, কৌন বনেগা ক্রোড়পতির ১৫ নম্বর সিজন এপিসোডের শেষে ইমোশন্যাল হলেন অমিতাভ বচ্চন। তাকে বলতে শোনা গেল, ‘দেবীও অউর সজ্জনো, এবার আমি আসছি। কাল থেকে এই মঞ্চ আর সাজবে না…’।
ফ্ল্যাশব্যাকে ভেসে ওঠে সিজনের পুরোনো ঝলক। দর্শকাসনে বসা এক মহিলা বলেন- ‘আমরা ভগবানকে দেখিনি, তবে ভগবানের সবচেয়ে প্রিয় পাত্রকে চোখের সামনে দেখছি।’

অমিতাভ ফের শুরু করেন, ‘কাল থেকে এখানে আসব না, আপনজনদের এ কথা বলবার না তো হিম্মত আছে, না ইচ্ছে। আমি, অমিতাভ বচ্চন এই মঞ্চ থেকে এইবারের মতো শেষ দফায় বলছি শুভ রাত্রি’। আবেগে গলা বুজে আসে তার।

কৌন বনেগা ক্রোড়পতির শেষ এপিসোডে অমিতাভের মুখোমুখি হয়েছিলেন শর্মিলা ঠাকুর, বিদ্যা বালান, শীতল দেবী, সারা আলি খানরা। শো-তে বিদ্যা জানান, মেগাস্টার অমিতাভ তার মেয়েবেলাকে কীভাবে প্রভাবিত করেছেন। অন্যদিকে জয়া-অমিতাভকে নিয়ে নিজের অজস্র স্মৃতি ভাগ করে নেন শর্মিলা।

গত ২০ সপ্তাহ ধরে নিয়মিত টিভির পর্দায় অমিতাভের এই কুইজ শো দেখতে অভ্যস্ত হয়ে পড়েছিল দর্শক। সেই অভ্যাসে ছেদ পড়ল অবশেষে। ২৩ বছর ধরে এই রিয়ালিটি শো-এর সঙ্গে ওতোপ্রোতভাবে জড়িত শাহেনশা। ১৫টি সিজনের মধ্যে ১৪টি সিজন হোস্ট করেছেন অমিতাভ। একবার তাঁর আসন দখল করেছিলেন শাহরুখ খান। তবে প্রিয় কিং খানেও অমিতাভের জায়গায় গ্রহণ করেনি জনতা।

১৫ নম্বর সিজনে নতুন চমক ছিল ‘সুপার সিন্দুক’। ৩লক্ষ ২০ হাজার টাকা জেতবার পর এই রাউন্ড খেলার সুযোগ পেত প্রতিযোগী। ব়্যাপিড ফায়ার এই রাউন্ডে ১ লক্ষ টাকা জয়ের সুযোগ থাকত। অন্যদিকে ৫০:৫০ লাইফলাইনের জায়গা নিয়েছিল ডবল ডিপ।

বিষয়ঃ
জনপ্রিয় সংবাদ

ভেজা চোখে কেবিসির মঞ্চকে বিদায় জানালেন বলিউড শাহেনশা অমিতাভ

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০৬:৩৮:৫৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩১ ডিসেম্বর ২০২৩

বছরের শেষলগ্নে এসে শেষ হল কৌন বনেগা ক্রোড়পতির ১৫ নম্বর সিজন। দীর্ঘ সফরে এই শো-এর সঙ্গে একাত্ম হয়ে গিয়েছেন সঞ্চালক বলিউড শাহেনশা অমিতাভ বচ্চন। আর তাই তো গত ২৯শে ডিসেম্বর শেষবারের মতো টিভির পর্দায় সম্প্রচারিত হওয়া কেবিসির মঞ্চকে ভেজা চোখ ও কাঁপা ঠোঁটে শেষবিদায় জানালেন বিগ বি।

হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, কৌন বনেগা ক্রোড়পতির ১৫ নম্বর সিজন এপিসোডের শেষে ইমোশন্যাল হলেন অমিতাভ বচ্চন। তাকে বলতে শোনা গেল, ‘দেবীও অউর সজ্জনো, এবার আমি আসছি। কাল থেকে এই মঞ্চ আর সাজবে না…’।
ফ্ল্যাশব্যাকে ভেসে ওঠে সিজনের পুরোনো ঝলক। দর্শকাসনে বসা এক মহিলা বলেন- ‘আমরা ভগবানকে দেখিনি, তবে ভগবানের সবচেয়ে প্রিয় পাত্রকে চোখের সামনে দেখছি।’

অমিতাভ ফের শুরু করেন, ‘কাল থেকে এখানে আসব না, আপনজনদের এ কথা বলবার না তো হিম্মত আছে, না ইচ্ছে। আমি, অমিতাভ বচ্চন এই মঞ্চ থেকে এইবারের মতো শেষ দফায় বলছি শুভ রাত্রি’। আবেগে গলা বুজে আসে তার।

কৌন বনেগা ক্রোড়পতির শেষ এপিসোডে অমিতাভের মুখোমুখি হয়েছিলেন শর্মিলা ঠাকুর, বিদ্যা বালান, শীতল দেবী, সারা আলি খানরা। শো-তে বিদ্যা জানান, মেগাস্টার অমিতাভ তার মেয়েবেলাকে কীভাবে প্রভাবিত করেছেন। অন্যদিকে জয়া-অমিতাভকে নিয়ে নিজের অজস্র স্মৃতি ভাগ করে নেন শর্মিলা।

গত ২০ সপ্তাহ ধরে নিয়মিত টিভির পর্দায় অমিতাভের এই কুইজ শো দেখতে অভ্যস্ত হয়ে পড়েছিল দর্শক। সেই অভ্যাসে ছেদ পড়ল অবশেষে। ২৩ বছর ধরে এই রিয়ালিটি শো-এর সঙ্গে ওতোপ্রোতভাবে জড়িত শাহেনশা। ১৫টি সিজনের মধ্যে ১৪টি সিজন হোস্ট করেছেন অমিতাভ। একবার তাঁর আসন দখল করেছিলেন শাহরুখ খান। তবে প্রিয় কিং খানেও অমিতাভের জায়গায় গ্রহণ করেনি জনতা।

১৫ নম্বর সিজনে নতুন চমক ছিল ‘সুপার সিন্দুক’। ৩লক্ষ ২০ হাজার টাকা জেতবার পর এই রাউন্ড খেলার সুযোগ পেত প্রতিযোগী। ব়্যাপিড ফায়ার এই রাউন্ডে ১ লক্ষ টাকা জয়ের সুযোগ থাকত। অন্যদিকে ৫০:৫০ লাইফলাইনের জায়গা নিয়েছিল ডবল ডিপ।